শনিবার, ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

এবার নেকাবের বিধান তুলে নিল সৌদি আদালত!

 

রিয়াদ: এবার সৌদি আরবে নেকাবের বিধান তুলে নিল দেশটির আদালত। নারীদের জন্য মুখ ঢাকা নেকাবের বদলে মাথা ঢাকা হিজাবের শর্ত নির্ধারণ করে দিল সৌদির রাজধানী রিয়াদের জেনারেল কোর্ট।

আজ বুধবার এ সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করেছে পাকিস্তানের প্রভাবশালী উর্দু পত্রিকা দৈনিক জং।

শর্ত অনুযায়ী, সাধারণ আদালতে আগমনকারী নারীদের শরীয়ত অনুমোদিত হিজাব (দেহ ঢাকার বস্ত্র) পরলেই হবে। এর মধ্য দিয়ে রিয়াদের জেনারেল কোর্ট চেহারা ঢেকে নারীদের কোর্টে আসার শর্ত প্রত্যাহার করে নিল। শুধু হিজাব পরে মাথা ঢাকলেই চলবে।

এদিকে কয়েকদিন আগে রিয়াদের আদালতে এক মহিলা আইনজীবী জজের সামনে চেহারা খুলে মোকাদ্দমা লড়তে আসেন। এ কারণে জজ তাকে আদালত থেকে বেরিয়ে যাওয়ার আদেশ দেন। এতে আদালতপাড়ায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

পরে ওই মহিলা আইনজীবী উচ্চ আদালতের তত্ত্বাবধায়কের কাছে জজের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আইন মন্ত্রণালয়ের দেওয়া বিবৃতিতে মহিলা আইনজীবীকে বিভিন্ন ভুলে আক্রান্ত বলেও আখ্যা দিয়েছিল।

ইসরাইলি দাবাড়ুদের ভিসা দেয়নি সৌদি, বিতর্কের মাঝেই টুর্নামেন্ট শুরু

সৌদি আরবের যে আন্তর্জাতিক দাবা টুর্নামেন্টে যাওয়ার জন্য ইসরাইলি দাবাড়ুদের ভিসা দেয়া হয়নি, অনেক বিতর্কের মাঝে সেই টুর্নামেন্ট শুরু হচ্ছে।

একজন সৌদি কর্মকর্তা বলেছেন, যেহেতু সৌদি আরবের সঙ্গে ইসরাইলের কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই, সে কারণেই তারা ইসরাইলি দাবাড়ুদের ভিসা দেননি।

ইসরাইলি দাবা ফেডারেশন বলেছে, সৌদি কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তের পর তারা আন্তর্জাতিক দাবা ফেডারেশনের কাছে ক্ষতিপূরণ চাইবে।

সৌদি আরবে এই প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক দাবা টুর্নামেন্ট হচ্ছে। সম্প্রতি সৌদি আরবে যেসব সংস্কারের মাধ্যমে দেশটিকে বাইরের দুনিয়ার জন্য খুলে দেয়ার চেষ্টা চলছে, এটিকে তারই অংশ বলে মনে করা হচ্ছে। খবর বিবিসির।

কিন্তু ইউক্রেনের একজন মহিলা দাবাড়ু আনা মুজিচুক জানিয়েছেন, তিনি এই টুর্নামেন্টে যাবেন না, কারণ তিনি ‘আবায়া’ পড়তে চান না। সৌদি আরবে মহিলারা প্রকাশ্য স্থানে যাওয়ার সময় তাদের বোরকার মতো আপাদমস্তক আবৃত করা আচ্ছাদন ‘আবায়া’ পড়তে হয়।

আনা মুজিচুক দুবারের বিশ্ব শিরোপাধারী দাবাড়ু। তিনি বলেন, সৌদি আরবের এই টুর্নামেন্টের পুরস্কার যাই হোক, তিনি সেখানে যাবেন না। যদি তার আগের শিরোপা কেড়ে নেয়া হয় তারপরও নয়।

বাদশাহ সালমান ওয়ার্ল্ড র্যাপিড এন্ড ব্লিটজ চেস চ্যাম্পিয়ন্সশীপের সর্বোচ্চ পুরস্কার হচ্ছে সাড়ে সাত লাখ ডলার।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের তিন নম্বর দাবাড়ু হিকারু নাকামারু বলেছেন, সৌদি আরবকে এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করতে দেয়া ঠিক হয়নি।

ভিসা না পাওয়ায় ইসরাইলের সাত জন দাবাড়ু খেলতে পারছেন না। কিন্তু কাতার এবং ইরানের দাবাড়ুদের অবশ্য শেষ মুহূর্তে ভিসা দেয়া হয়েছে।

ইসরাইল বলেছে, তাদের ধারণা ছিল সৌদি আরব এই টুর্নামেন্টে ইসরাইলি দাবাড়ুদের খেলতে দেবে।

ইসরাইল বলছে, বিশ্ব দাবা সংস্থাকে সৌদি আরব আসলে বিভ্রান্ত করেছে যাতে করে তারা এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করতে পারে।

আরটিএনএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Archives

August 2020
S S M T W T F
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  
shares