শুক্রবার, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

ওয়াজ শুনে এমপি এনামুর রহমানের একমুষ্ঠি দাড়ি রাখার ওয়াদা

গতকাল সাভার জিরাবো উলামা পরিষদের  মাহফিলে এম,পি ডাঃ এনামুর রহমান সাহেব একমুষ্ঠি দাড়ি রাখার ওয়াদা করেন
মুফতী রিজওয়ান রফিকী’ র হাতে।

গতকাল ছিলাম জিরাবো উলামা পরিষদের মাহফিলে।
মাহফিল স্থলে পৌঁছুলাম।
ততক্ষণে বয়ান করছেন সময়ের অন্যতম তারকা বন্ধুবর মুফতী লুতফুর রহমান ফরাজী হাফিযাহুল্লাহ।
পৌনে নয়টা অামার বয়ান।
ষ্টেইজে ভরপুর মানুষ।
ফরাজী ভায়ের জ্ঞানগর্ভ অালোচনা শুনছেন শ্রোতারা বড় মনোযোগ দিয়ে।
অার কেনই বা শুনবে না তথ্যবহুল এবং দলীল ভিত্তিক সহিহ কথা গুলোর তো মজাই অালাদা।
ফরাজী ভায়ের পাশেই বসেছিলেন অত্র এলাকার এম,পি মহোদয়।
রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্ত রোগীদের প্রতি তাঁর সেই অবদানের কথা জাতী মনে রাখবে অাজীবন।
এনাম মেডিকেলের সন্মানিত মালিক ডাঃ এনামুর রহমান এনাম।

যাইহোক ফরাজী ভাই বয়ান শেষ করলেন অামি গিয়ে বসলাম।
কিছুক্ষণের মধ্যেই এম,পি মহোদয় কে প্রধান অতিথীর বক্তব্য রাখার জন্য অাবেদন করা হলো।
বক্তব্য শুরু করলেন।
অার সাথে সাথে চমকপ্রদ কথামালা শুনাচ্ছিলেন।
তিনি খাঁটি তাবলীগী।
তাবলীগ জামাতের ভরপুর প্রসংসা করছিলেন।
সাভারে তিনটি মসজিদে তাবলিগের কাজ করতে দেয়া হতো না,
তিনি নিজেই উদ্যোগ নিয়ে থানা মসজিদেও জামাত নিয়ে গেছেন।
সুবহানাল্লাহ!
সত্যিই কথা গুলো শুনছিলাম অার মনে মনে ভাবছিলাম “অাহ্ সবাই যদি এমন হতো”!
অামাকে বসিয়ে তিনি অনেক সময় নিয়ে কথা বললেও একদমই বিরক্ত হইনি।
অার কেনই বা হবো?
তাঁর কথা অামার কথা যেন একই কথা দুই যবানে।

দেখলাম।
বুঝলাম।
তিনি দ্বীন দরদী।
দ্বীনের ফিকির, উম্মতের ফিকির যথেষ্ট রয়েছে।
তিনি অন্য দশজন এম,পির মত নন।
তিনি মনমানোসিকতায় একটু ভিন্ন।

বক্তব্য শেষ করলেন।
যখন অামার পালা অাসলো।
শ্রোতাদের উদ্দেশ্য করে সালাম দিয়ে খুতবার অাগেই সুযোগটা লুফে নিলাম।
বললাম-
এম,পি সাহেব যদিও বয়সে অামার বাবার মত হবেন,
কিন্তু ইসলামিক দৃষ্টিকোন থেকে তিনি অামার ভাই।
পাশাপাশি অামিও দাওয়াতে তাবলিগকে মহব্বত করি দিল থেকে এবং এক চিল্লার সাথী হওয়ার কারণে তিনি অামার সাথী ভাইও বটে।
এম,পি সাহেবের মনমানোসিকতা খুব ভালো দেখলাম।
বাট তিনি দাড়িটা সুন্নাত তরিকায় রাখতে পারেননি।
অামি দরদ নিয়ে দাওয়াত দিলাম।
বললাম-
এম,পি সাহেব!
আমার হাতে হাত রেখে ওয়াদা দেন অার কখনও দাড়ি কাটবেন না।
অালহামদুলিল্লাহ।
স্বাচ্ছন্দ্যে সবার সামনে অামার হাতে হাত রেখে তওবা করলেন অার কখনও একমুষ্টি থেকে ছোট করবেন না।

পুরো বয়ানটা শুনলেন।
রহমতে খোদাওয়ান্দী ও খশয়াতে এলাহী নিয়ে বয়ান চলছিল।
অালহামদুলিল্লাহ।
অত্র এলাকার নেতা,কর্মীসহ অসংখ্য যুবক দাড়ি রাখার নিয়্যত করেছে।

সুন্নাতের বদৌলতে ধন্য অামি,
ধন্য এম,পি,ধন্য জিরাবো বাসী।
অাহলে হক জিন্দাবাদ।
দাওয়াতে তাবলীগ জিন্দাবাদ।

এম,পি সাহেবের জন্য সবার দোয়া কামনা করছি।

মুফতী রিজওয়ান রফিকী’ র ফেইসবুক টাইম লাইন থেকে ।

One thought on “ওয়াজ শুনে এমপি এনামুর রহমানের একমুষ্ঠি দাড়ি রাখার ওয়াদা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Archives

February 2021
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728  
shares
%d bloggers like this: