রবিবার, ২৮শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী

শীয়া ধর্ম: ধারাবাহিক বিশ্লেষণ – পর্ব ০৫

পবিত্র কুরআন ও পবিত্র হাদীস সম্পর্কে শীয়াদের আকীদা

প্রিয় পাঠক,
সমগ্র মুসলিম উম্মাহর আকীদা হলো, বর্তমান পঠিত কুরআন কামিল ও মুকাম্মাল এবং সবধরনের বিকৃতি থেকে মুক্ত ৷ আর এতে বেশকম বা বিকৃতির আকীদা পোষণকারী অকাট্য কাফের ও মুসলিম উম্মাহ থেকে খারিজ ৷ আল্লাহ তাআলা নিজেই হেফাযতের দায়িত্ব গ্রহণ করে ঘোষণা দিয়েছেন:
إنا نحن نزلنا الذكر وإنا له لحافظون
অর্থাত্, আমিই কুরআন নাযিল করেছি এবং আমিই এর রক্ষক ৷
আল্লাহ তাআলার অশেষ শুকরিয়া যে, লাখলাখ হাফেয রমাদান মাসে কুরআন কারীম শুনান এবং কোটি কোটি মুসলমান তাদের পিছনে পূর্ণ কুরআন বিসমিল্লাহর “বা” থেকে ওয়ান্নাস এর “সীন” পর্যন্ত শুনে ৷ সেইসাথে কুরআন খতমের উপর আনন্দের অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করে থাকে ৷ দৈনিক তিলাওয়াতও করে ৷ এই ধারাবাহিকতা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে এই অবধি চালু রয়েছে এবং ইনশাআল্লাহ কেয়ামত পর্যন্ত চালু থাকবে ৷ কিন্তু শীয়াদের আকীদা এর সম্পূর্ণ বিপরীত ৷

দেখুনঃ
আসল কুরআন হযরত আলী রাঃ সংকলন করেছেন ৷ সেই কুরআন অনাগত ইমামের নিকট সংরক্ষিত আছে এবং সেটা বর্তমান কুরআন থেকে ভিন্ন ৷

শীয়াদের বিশ্বাস হলো, আসল কুরআন সেটাই যা হযরত আলী রাঃ সংকলন করেছেন ৷ যা বর্তমান কুরআন থেকে ভিন্ন ৷ তা হযরত আলীর কাছেই থেকে যায় ৷ তারপর তাঁর সন্তানদের মধ্য থেকে যারা ইমাম ছিলেন তাঁদের কাছে সংরক্ষিত থাকে ৷ এখন ওই কুরআন ইমামে গায়েব তথা অনাগত ইমামের কাছে সংরক্ষিত আছে ৷ যখন তাঁর অভ্যুদয় হবে তখনই তিনি তা প্রকাশ করবেন ৷ তার আগে সেটা কেউ দেখতে পারবে না ৷ (সম্ভবতঃ এ কারণেই শীয়ারা বর্তমান পূর্ণাঙ্গ কুরআনের হিফযের সৌভাগ্য থেকে বঞ্চিত) ৷

তাদের আকীদার মূল বিবরণ ৬ষ্ঠ পর্বে ইনশাআল্লাহ ৷ ক্রমশঃ ৷ Lisanul Haque Shahrumi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Archives

July 2020
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
shares