শনিবার, ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

❐ যাতে ওযু নষ্ট হয় না ❐

১। নারীকে স্পর্শ করলে ওযু ভাঙ্গে না। (অবশ্য স্পর্শ বা চুম্বনের ফলে মযী বের হলে তা ধুয়ে ওযু জরুরী। (ফাতাওয়া ইবনে উষাইমীন ১/২৮৫-২৮৬)।
২। হো-হো করে হাসলে ওযু ভাঙ্গে না। (ফিকহুস সুন্নাহ্‌ উর্দু ১/৫০-৫১, বুখারী, ফাতহুল বারী, ইবনে হাজার ১/৩৩৬)।
৩। বমি করলে ওযু ভাঙ্গে না। (ইরওয়াউল গালীল, আলবানী ১/১৪৮, আলমুমতে’, শারহে ফিক্‌হ, ইবনে উষাইমীন ১/২২৪-২২৫)।
৪। (পুরুষদের) টাখনুর নিচে কাপড় ঝুলালে; টাখনুর নিচে কাপড় ঝুলানো কাবীরা গুনাহ। (বুখারী: ৫৭৮৪; মুসলিম: ২০৮৫) কিন্তু এর ফলে ওযু ভাঙ্গে না।
৫। নাক থেকে রক্ত পড়লে ওযু নষ্ট হয় না। (যয়ীফ ইবনে মাজাহ্‌: ২৫২, যয়ীফ জামে ৫৪২৬)
৬। দেহের কোন অঙ্গ কেটে রক্ত পড়লে, দাঁত থেকে রক্ত ঝরলে, তীরবিদ্ধ হয়ে রক্ত পড়লে ওযু নষ্ট হয় না। ইবনে উমার ওহাসান বলেন, কেউ শৃঙ্গ লাগিয়ে বদ-রক্ত বের করলে কেবল ঐ জায়গাটা ধুয়ে নেবে। এ ছাড়া ওযু-গোসল নেই। (বুখারী ফাতহুল বারী, ইবনে হাজার ১/৩৩৬)

৭। মৃত ব্যক্তিকে গোসল করালে ওযু নষ্ট হয় না। তবে করা মুস্তাহাব (উত্তম)। (দারাক্বুত্বনী, সুনান ১৯১)। অবশ্য মাইয়্যেতকে গোসল দেওয়ার সময় তার লজ্জাস্থানে হাত লেগে থাকলে ওযু অবশ্যই নষ্ট হবে। আর জানাযা বহন করাতে ওযু নষ্ট হয় না। (মাজাল্লাতুল বুহূসিল ইসলামিয়্যাহ্‌ ২৬/৯৬)

৮। মৃতদেহের পোষ্টমর্টেম করাতেও ওযু ভাঙ্গে না। (মাজাল্লাতুল বুহূসিল ইসলামিয়্যাহ্‌ ২৭/৪০)

৯। ওযু করে মায়েরা যদি তাদের শিশুর পেশাব বা পায়খানা সাফ করে, তবে তা হাতে লাগলেও ওযু ভাঙ্গে না। অবশ্য পায়খানাদ্বার বা পেশাবদ্বার ধোয়ার সময় কোন দ্বারে হাত লাগলে ওযু নষ্ট হয়ে যায়। (ঐ ২২/৬২)

১০। কোনও নাপাক বস্তু (মানুষ বা পশুর পেশাব, পায়খানা, রক্ত প্রভৃতি)-তে হাত বা পা দিলে ওযু ভাঙ্গেনা। (ঐ ৩৫/৯৬)

১১। ওযু করার পর ধূমপান করলে ওযু নষ্ট হয় না। তবে ধূমপান করা অবশ্যই হারাম। (ঐ ১৮/৯২-৯৩)

১২। কোলন, এলকোহল বা স্পিরিট-মিশ্রিত আতর বা সেন্টব্যবহার করলে ওযুর কোন ক্ষতি হয় না। তবে তা ব্যবহার বৈধ নয়। (ফাতাওয়া ইসলামিয়্যাহ্‌, সঊদী উলামা-কমিটি ১/২০৩)। (এলকোহলমুক্ত সুগন্ধি ব্যবহার করুন)।

১৩। চুল, নখ ইত্যাদি সাফ করলে ওযু ভাঙ্গে না। (ফাতাওয়া ইবনে উষাইমীন ১/২৯২, বুখারী ১/৩৩৬) তদনুরুপ অশ্লীল কথা বললে, হাঁটুর উপর কাপড় উঠে এলে, মহিলার মাথা খোলা গেলে, কাউকে বা নিজেকে উলঙ্গ দেখলে ওযু নষ্ট হয় না।

দুধ পান করলে নামাযের পূর্বে কুলি করা মুস্তাহাব। (বুখারী: ২১১; মুসলিম: ৩৫৮)

❐ [তথ্যসূত্রঃ- বই- স্বালাতে মুবাশ্‌শির]

Archives

July 2021
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
%d bloggers like this: